আইপিএল অধিনায়কদের কার বেতন কত, এবারের আসরে ৮ দলের মধ্যে ৬ দলের অধিনায়ক থাকছেন ভারতীয়। আর ২ দলের অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন বিদেশী ক্রিকেটার। দেখে নেওয়া যাক ৮ দলের অধিনায়কদের বেতনের দিক থেকে কে এগিয়ে আর কার বেতন কত:-

বিরাট কোহলি, (আরসিবি) ১৭ কোটি:

শুধু অধিনায়কদের মধ্যেই নয়, আইপিএলের ইতিহাসে সবথেকে দামি ক্রিকেটার বিরাট। ১৭ কোটি টাকার বিনিময়ে কোহলিকে নিলামে ধরে রেখেছে আরসিবি। একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে আইপিএলের সমস্ত সংস্করণেই একই দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন বিরাট কোহলি।

রোহিত শর্মা, (মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স) ১৫ কোটি:

আইপিএলেই ইতিহাসে সফলতম অধিনায়ক। কাপ জিতেছেন চার বার। রোহিতকে নিলামে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ধরে রেখেছে ১৫ কোটি টাকার বিনিময়ে। সূত্রের খবর, বিরাটের সমপরিমাণ অর্থের প্রস্তাব ছিল মুম্বাইয়ের তরফে। তবে রোহিতই নাকি তেমনটা চাননি।

এমএস ধোনি, (সিএসকে) ১৫ কোটি:

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মত আইপিএলেও ধোনি রাজ চলছে শুরুর সংস্করণ থেকে। ২০১৮ সালে ক্রিকেটার ধরে রাখার ক্ষেত্রে ধোনিই ছিল সিএসকে-র প্রথম পছন্দ। ধোনির বেতন ১৫ কোটি। ধোনির নেতৃত্বে সিএসকে আইপিএলে তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ফাইনালে সিএসকে খেলেছে রেকর্ড সংখ্যক আটবার।

স্টিভ স্মিথ, (রাজস্থান রয়্যালস) ১২ কোটি:

২০১৮ সালে অস্ট্রেলীয় ক্যাপ্টেনকে ১২ কোটি টাকার বিনিময়ে ধরে রাখে রাজস্থান রয়্যালস। তবে সেই বছর নির্বাসনের কারণে খেলতে পারেননি অজি নেতা। ২০১৯ সালে নির্বাসন কাটিয়ে ফিরেই স্মিথকে ক্যাপ্টেন করা হয় রাহানেকে সরিয়ে। মৌসুমের মাঝপথেই নেতৃত্বে বদল আনে রাজস্থান। ২০২০ তে পূর্ন সময়ের নেতা স্মিথ।

ডেভিড ওয়ার্নার, (সানরাইজার্স হায়দরাবাদ) ১২ কোটি:

স্মিথের জাতীয় দলের সহকারীর বেতনও ১২ কোটি। গত মরশুমে কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে খেলেছিলেন তিনি। এবার ফের তাঁকে নেতৃত্বে আনা হয়েছে। গত মরশুমে ১২ ম্যাচে ৬৯২ রান করে অরেঞ্জ ক্যাপ জেতেন অস্ট্রেলীয় সুপারস্টার।

লোকেশ রাহুল, (কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব) ১১ কোটি:

২০১৮ সালের নিলামে ১১ কোটি টাকায় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবে যোগ দেন রাহুল। নিলামে রাহুলকে নিতে আগ্রহী ছিল চার-চারটে দল। তবে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব শেষ হাসি হাসে। আইপিএলে ১৪৬.৬০ স্ট্রাইক রেটে ১২৫২ রান করেছেন রাহুল।

দীনেশ কার্তিক, (কেকেআর) ৭.৪ কোটি:

২০১৮ সালে কেকেআর টিম ম্যানেজমেন্ট চেয়েছিল রবিন উত্থাপাকে দায়িত্বে আনতে। তবে সবাইকে সারপ্রাইজ দিয়ে নেতা করা হয় দীনেশ কার্তিককে। ৭.৪ কোটি টাকায় নিলামে কার্তিককে কেনে কেকেআর। কার্তিককে নিতে আগ্রহী ছিল রাজস্থান, চেন্নাই এবং মুম্বাইও।

শ্রেয়স আইয়ার, (দিল্লি ক্যাপিটালস) ৭ কোটি:

২০১৮ সালে শেষ ক্রিকেটার হিসেবে শ্রেয়স আইয়ারকে রিটেন করে দিল্লি ক্যাপিটালস। তারপর শ্রেয়সকে ক্যাপ্টেন বেছে কিছুটা বিস্ময়ই ছড়ায় দিল্লি। কারণ, অনেকেই ভেবেছিলেন ঋষভ পন্থকে ক্যাপ্টেন করা হবে। যিনি দিল্লি দলের নেতা হিসেবে দলকে রঞ্জি ট্রফির ফাইনালে তুলেছিলেন।

সূত্রঃ স্পোর্টসজোন২৪

 আরও পড়ুন: আইপিএল খেলতে না পেরে কোটি টাকা লস মুস্তাফিজের

“খেলা সংক্রান্ত সকল সাম্প্রতিক খবর জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here